বুধবার, ১৬ Jun ২০২১, ০৫:০৯ পূর্বাহ্ন

সর্বশেষ সংবাদঃ
শর্ত সাপেক্ষে অটোপাস পাচ্ছেন অনার্স প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীরা পুলিশ ম্যাজিকের মতো সবকিছু করেছেন: পরীমণি দেশে জনসনের ভ্যাকসিনের অনুমোদন মাদারীপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২,আহত ১ দেশে অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা নিয়েছেন ১ কোটি ৭৩ হাজার ৫১৪ জন রাষ্ট্রপতি কাজাখ রাজধানীতে ওআইসি সম্মেলনে ভার্চুয়ালি যোগ দিবেন সবুজ-শ্যামল বাংলাদেশ আরো সবুজ হোক: প্রধানমন্ত্রী জয়পুরহাটে গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় মৃত্যু ৫০, শনাক্ত ৩৩১৯ মোংলা বন্দরে যুক্ত হচ্ছে মাল্টিপারপাস মোবাইল ক্রেন সংসদে হজ ও ওমরা ব্যবস্থাপনা বিল পাস বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেরিটাইম ইউনিভার্সিটিতে চাকরি পরীক্ষার স্থান, সময় ও প্রার্থীর তালিকা সাধারণ বীমা করপোরেশনের ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে পরীমনিকে সাহায্য করেনি পুলিশ, প্রমাণ সিসিটিভি ফুটেজে ডিবি কার্যালয়ে পরীমনি
নাভালনির সংগঠনকে ‘উগ্রপন্থি’ আখ্যা দিয়ে অবৈধ ঘোষণা

নাভালনির সংগঠনকে ‘উগ্রপন্থি’ আখ্যা দিয়ে অবৈধ ঘোষণা

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে বিদ্রূপ করার প্রচারণার অংশ হিসেবে আলেক্সেই নাভালনির প্রতিষ্ঠিত সংগঠনগুলোকে ‘উগ্রপন্থি’ আখ্যা দিয়েছে দিয়ে সেগুলোকে অবৈধ ঘোষণা করেছেন দেশটির একটি আদালত।

স্থানীয় সময় বুধবার (৯ জুন) মস্কো সিটি কোর্টের রায় দিয়েছেন- নাভালনির দুর্নীতিবিরোধী ফাউন্ডেশন (এফবিকে) এবং রাশিয়ার বিভিন্ন অঞ্চলে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা এর অন্যান্য অফিসগুলো বন্ধের আদেশ দেয়।

রাশিয়ার আইন অনুযায়ী ‘উগ্রপন্থি’ হওয়ার অর্থ যিনি ওই সংগঠনে কাজ করবে, অর্থায়ন করবে এমনকি সাধারণভাবে সমর্থন করবে তার বিরুদ্ধে মামলা অথবা দীর্ঘ সময়ের জন্যও কারাবন্দি করা যাবে।

আদালত এমন একসময় দেশটির বিরোধীদলীয় নেতা নাভালনির সংগঠনগুলোকে অবৈধ ঘোষণা করল যখন দেশটির স্টেট দুমা (জাতীয় সংসদ) নির্বাচনের মাত্র কয়েক মাস বাকি।

আদালতের বাইরে প্রসিকিউটরদের মুখপাত্র অ্যালেক্সি জাফরভ বলেন, এটি প্রমাণিত হয়েছিল যে এই সংস্থাগুলো কেবল সরকারি কর্মচারীদের বিরুদ্ধে ঘৃণা ও শত্রুতামূলক মনোভাবই ছড়িয়ে দেয়নি, উগ্রপন্থি পদক্ষেপও গ্রহণ করেছে।

রাশিয়াতে উগ্রপন্থি সংগঠনের তালিকায় অন্তত ৩০টি সংগঠন রয়েছে, যাদের মধ্যে ইসলামিক স্টেট (আইএসআইএস), আল কায়েদা, জাহোভেস ইত্যাদি সংগঠনগুলো রয়েছে। সেই তালিকায় এখন নাভালনির সংগঠনও অন্তর্ভুক্ত হলো।

এর আগে, চলতি বছরের এপ্রিলে মস্কোর একটি আদালত এফবিকে বন্ধের নির্দেশ দিয়েছিল। এরপর সরকারি কৌঁসুলিরা সংগঠনগুলোকে ‘সন্ত্রাসী ও উগ্রপন্থি’ সংগঠনের তালিকায় যুক্ত করার আবেদন জানিয়েছিল।

তখন ব্রিটিশ গণমাধ্যম গার্ডিয়ানের এক বিশ্লেষণে বলা হয়, এই সিদ্ধান্তকে ক্রেমলিনের সবচেয়ে বড় রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে একটি সুদূরপ্রসারী আঘাত।

শেয়ার করুন

Leave a Reply




মালিকানা স্বত্ব © এমএমবি নিউজ ২৪- ২০২১
ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ।